২০০৫ সালে আমার প্রথম বই "চলো, সিঙ্গলহ্যান্ড" প্রকাশিত হয় বইমেলায়। একই বছরে বৈখরীভাষ্যতে প্রকাশিত হয় "লাজুক লটারিদের ডায়েরি"। এই বড় লেখাটি আমার লেখাজীবনের সবচেয়ে বড় টার্নিং পয়েন্ট বলা যায়। লেখাটি এখন "টেক্সট" বলে যে গদ্য ও কবিতা যাতায়াতযুক্ত ফর্মটি প্রচলিত, সেই ফর্মের এক্কেবারে প্রথম দিককার রচনা, হয়তো প্রথম প্রকাশিত কয়েকটি "টেক্সট" এর মধ্যে এটি থাকবে। আমি ফর্মটির নাম দিয়েছিলাম "ব্যাপার"। বারীনদা অর্থাৎ বারীন ঘোষাল পরে এগুলিকে "ইজমিক রাইটিংস" (ismic writings) বলেছিলেন। ব্যক্তিগতভাবে আমার ভীষণ কাছের এই লেখাটি, ১১ বছর আগেকার মানে অবশ্যই অপরিণতির চিহ্ন আদি বর্তমান এই লেখাটিতে।